Call Now: +88 01816 781 772
Top Banner

সুপ্রিয় শিক্ষার্থীরা,

আস্সালামু আলাইকুম।

যন্ত্রণাকাতর মুমূর্ষের মুখে হাসি ফোটানোর মহান প্রত্যয় নিয়ে তোমরা যারা ডাক্তার হবার বাসনা মনে লালন করছ, তোমাদেরকে ঐতিহ্যবাহী, অপ্রতিদ্বন্দ্বী ও শীর্ষস্থানীয় “ রেটিনা মেডিকেল ও ডেন্টাল ভর্তি কোচিং” এর পক্ষ থেকে জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা। দীর্ঘ বার বছরে তোমাদের যে কঠোর পরিশ্রম, মেধার অনুশীলন আর দুর্নিবার স্বপ্ন দেখার যে প্রয়াস, তারই মূল্যায়ন হবে এবার। জীবন সংগ্রামের সবচেয়ে কঠিন, ভয়ংকর আর পিচ্ছিল ধাপে অবতীর্ণ হতে যাচ্ছ তোমরা। কারণটি দিবালোকের মত পরিষ্কার। ৩১টি সরকারী মেডিকেল ও ৯টি ডেন্টাল কলেজের মোট ৩৮৫০ টি আসনের জন্য প্রতিবছর প্রায় ৯০ হাজারেরও অধিক ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে। এত বিপুল সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রীর মধ্যে মাত্র ৩-৪% তাদের অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছতে পারে। বাকিরা ছিটকে পড়ে নিরুদ্দেশে। এই কঠিন প্রতিযোগিতা আর প্রতিকূলতার মাঝে তোমাদের পাশে একমাত্র নির্ভরযোগ্য দিক নির্দেশনার যে আলোকবর্তিকা, তার নাম রেটিনা। 

বিগত ৩৮ টি বছর ধরে রেটিনা তার সাফল্যের মুকুটে একের পর এক স্বর্ণপালক যুক্ত করছে। যদি বলি, রেটিনার লেকচারারগণ সবচেয়ে অভিজ্ঞ, পারদর্শী, আন্তরিক তাতে সব বলা হয় না; যদি বলি-রেটিনার লেকচার সবচেয়ে ফলপ্রসূ, আধুনিক, বিজ্ঞানসম্মত-তাতেও সব বলা হয় না; যদি বলি রেটিনার ক্লাস টেস্ট, মডেল টেস্টের প্রশ্নপত্র সবচেয়ে সেরা ও ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের বিশুদ্ধ ক্লোন এবং রেটিনার লেকচার শীট ও গাইড অপ্রতিদ্বন্দ্বী সেটা আর এমন কি বলা হয়; কিন্তু যদি বলি রেটিনা থেকেই বছরের পর বছর মেডিকেল কলেজগুলোতে সবচেয়ে বেশী সংখ্যক ছাত্রছাত্রী চান্স পেয়ে আসছে-তাহলেই রেটিনার সমস্ত দিক তুলে ধরা যায়। হ্যাঁ বন্ধুরা, বিগত বছরগুলোর ধারাবাহিকতায় এ বছরেও রেটিনা থেকে ২০২০ জন শিক্ষার্থী বিভিন্ন মেডিকেলে চান্স পেয়েছে। প্রতিবছর রেটিনাই তার পূর্বের বছরের সাফল্যকে অতিক্রম করে একের পর এক মাইলফলক অতিক্রম করে একের পর এক মাইলফলক অতিক্রম করে চলছে। তাই, রেটিনাই আজ রেটিনার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী।

এই অপ্রতিদ্বন্দ্বী সাফল্যের নেফথ্যে আছে “ পরীক্ষাগুলোতে রেটিনার স্টুডেন্টদের সবচেয়ে ভালো পারফরমেন্ট”। প্রতিটি ছাত্র/ছাত্রী, তার স্কোর যত কমই হোক না কেন, রেটিনার পরিচর্যায় হয়ে ওঠে ক্ষুরধাপ মস্তিষ্ক, অতি অল্প সময়ে সঠিক উত্তর বাছাইয়ে সর্বেোচ্চ দক্ষ আর পরীক্ষার হলে মাথা ঠান্ডা রাখার ব্যাপারে সবচেয়ে কৌশলী ও ধৈর্যশীল। তাই পরীক্ষাগুলোতে ভাল করার মাধ্যমে লাভ করে সর্বোচ্চ সাফল্য। আকাশ ছোঁয়া এ সাফল্যে আমরা বিষ্ময়বোধ করি না, আত্মতৃপ্তিতে হারিয়ে যাই না। আমাদের একটা প্রতিশ্রুতি আছে তোমরা যারা মেডিকেলে চান্স পেতে চাও, তাদের প্রতি। তোমাদের চান্স পাওয়ানানোর জন্য আমাদের প্রচেষ্টা থাকবে সর্বেোচ্চ, আমাদের পরিকল্পনা হবে নিখুঁত, আমাদের আয়োজন হবে যথাযথ এবং পরিপূর্ণ, আমাদের আন্তরিকতা হবে প্রশ্বাতীত-সব কিছুর উপরে আমরা মহান আল্লাহর উপর নির্ভর করি। আর সে কারণেই আমাদের সাফল্যের হার সবচেয়ে বেশি।

আমাদের স্বাতন্ত্র্য

* সরাসরি পাঠ্য বই থেকে পাঠ দান, শুধু লেকচার শীট বা নোট কেন্দ্রিক প্রস্তুতি নয়।

* প্রতিটি বিষয় ২/৩ টি বই থেকে লাল সবুজ কালিতে দাগিয়ে সব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নিশ্চিত করা।

* বেসিক কনসেপসন গঠনের জন্য মাল্টিমিডিয়া প্রেজেন্টেশন সমৃদ্ধ লেকচার ক্লাস।

মূল্যায়ন পদ্ধতিঃ

* সপ্তাহে ৩টি ক্লাশ, ৩টি ক্লাশ টেস্ট ও প্রতি শুক্রবার সাপ্তাহিক টিউটোরিয়াল পরীক্ষা।

* মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার অনুরূপ মানসম্মত প্রশ্নপত্রে পেপার ফাইনাল, সাবজেক্ট ফাইনাল ও মডেল টেস্ট।

* মোট ৩০টি লেকচার, ৬৭টি পরীক্ষা, ১৮৭টি মান সম্মত প্রশ্নপত্র এবং ১৫ হাজারেরও বেশি প্রশ্ন সলভ করা হয়।

* অধ্যাধুনিক মেশিনে ডিজিটাল পদ্ধতিতে উত্তরপত্র নিরীক্ষণ।

* মূল্যায়ন পরীক্ষার মেরিট লিস্ট কেন্দ্রীয়বাবে প্রণয়ন, সারা দেশে রেটিনার ১৭টি শাখার মাঝে শিক্ষার্থীর অবস্থান জানার ব্যবস্থা।

* পরীক্ষার ফলাফল কম্পিউটারে সংরক্ষণ এবং এর মাধ্যমে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের জানানোর ব্যবস্থা। এছাড়াও রেটিনার নিজস্ব ওয়েবসাইটের পরীক্ষার ফল প্রকাশ। 

তত্ত্বাবধানঃ

* সার্বক্ষণিক মেডিকেল ছাত্রদের দ্বারা নিবিড় তত্ত্বাবধান ও সঠিক দিক নির্দেশনা।

* পদার্থ, রসায়ন ও জীববিজ্ঞানের পাশাপাশি সাধারণ জ্ঞান ও ইংরেজিতে সমস্যা কাটিয়ে উঠতে বিশেষ ও আকর্ষণীয় ক্লাশ।

পরিশেষে সেই স্বপ্নময় প্রত্যাশা, মেডিকেল অঙ্গনগুলো তোমাদের পদচারণায় মুখরিত হবে, অজেয়কে জয় করার উল্লাসে তোমাদের চোখে ফুটবে আনন্দের ঝিলিক, দেশ ও জাতির গর্ভ হবে তোমরা, তোমাদের নিয়ে গর্বিত হবে রেটিনা।

আল্লাহ হাফেজ।

 

পরিচালনা পর্ষদ

রেটিনা মেডিকেল ও ডেন্টাল ভর্তি কোচিং

Top